সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) বিএসটিআই’র পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।
সংস্থাটি বলছে, পরিদর্শন দলের মাধ্যমে খোলাবাজার থেকে নমুনা ক্রয় করে পরীক্ষা করার পর এসব পণ্য মান অনুযায়ী পাওয়া যায়নি।
১৩ কোম্পানির ১৫টি পণ্য হলো;
১. ফার্ম ফ্রেশ ঘি।
২. ইফাদ আয়োডিন যুক্ত লবণ
৩. মদিনা লাচ্ছা সেমাই।
৪. খাজানা লাচ্ছা সেমাই।
৫. খাজানা ঘি।
৬. খাজানা চানাচুর।
৭. প্রমি হলুদের গুড়া।
৮. এরাবিয়ান স্পেশাল ঘি।
৯. রেভেন লাচ্ছা সেমাই।
১০. শক্তি ফর্টিফাইড সয়াবিন অয়েল।
১১. সেফ ফর্টিফাইড সয়াবিন অয়েল।
১২. উট আয়োডিনযুক্ত লবন।
১৩. নজরুল আয়োডিনযুক্ত লবণ।
১৪. মডার্ন স্কিন ক্রিম।
১৫. জিএম স্কিন ক্রিম।
নতুনভাবে লাইসেন্স গ্রহণ ছাড়া এসব পণ্য উৎপাদন ও বিপণন করতে পারবে না সংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলো। পাশাপাশি সরবরাহকারী, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতারা পণ্যগুলো বিক্রি করতে পারবেন না। বিএসটিআই ওই সব পণ্য বাজার থেকে তুলে নেওয়ার অনুরোধ করেছে এবং ভোক্তাদের তা না কেনার পরামর্শ দিয়েছে।