সু চির মুক্তির দাবি জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের

0
10

ডেস্ক নিউজ: মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের পর গৃহবন্দি করে রাখা আং সান সু চিসহ অন্য নেতাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ।

এক বিবৃতিতে নিরাপত্তা পরিষদ জানিয়েছে, ‘ফেব্রুয়ারি মাসের ১ তারিখে মিয়ানমারে হওয়া সেনা অভ্যুত্থান নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। কোনো সঙ্গত যুক্তি ছাড়াই সু চিসহ সরকারের অন্য সদস্যদের আটক করা হয়েছে। তাদের দ্রুত মুক্তি দেওয়া হোক।’

এর আগে মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থান নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার বিবৃতিতে দেশটির বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার হুমকি দিয়েছেন। উদ্বেগ প্রকাশ করে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও সু চিকে মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছে ভারত, ব্রিটেনসহ একাধিক দেশ।

সু চিসহ অন্যান্য নেতাদের গ্রেফতারে বিক্ষোভ বাড়ছে দেশটিতে। এ অবস্থায় দেশজুড়ে ফেসবুকসহ অন্যান্য সেবা বন্ধ করে দিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী।

নির্বাচনের অনিয়মের অভিযোগ তুলে সোমবার ভোরে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে দেশটির সেনাবাহিনী। এ দিন অং সান সু চি ও ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের আটক করা হয়। রাজধানী নেপিডো ও প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় রাস্তায় টহল দিতে শুরু করে সামরিক বাহিনীর সদস্যরা। দেশজুড়ে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়। এরপর সকালে আনুষ্ঠানিকভাবে অভ্যুত্থানের খবর নিশ্চিত করে সেনাবাহিনী।

মিয়ানমারে বেআইনিভাবে আটক সবাইকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে সেনা সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে খসড়া প্রস্তাবে। নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবটি প্রস্তুত করেছে যুক্তরাজ্য। এক বছরের জন্য জারি করা জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করে নেওয়ার আহ্বান রয়েছে এতে। সব পক্ষকে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ অনুসরণের আহ্বান জানানোর প্রস্তাবে অবশ্য, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলা নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here