পুলিশ স্টাফ কলেজ বাংলাদেশ-এর ১৭তম বোর্ড সভা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, এমপি’র সভাপতিত্বে অদ্য ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ তারিখ পুলিশ স্টাফ কলেজের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। বোর্ড সভায় ভাইস-চেয়ারম্যান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জনাব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি), বাংলাদেশ ড. বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) সহ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা, অর্থ, জনপ্রশাসন ও মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও ডিফেন্স সার্ভিসেস স্টাফ কলেজ-এর কমান্ড্যান্ট উপস্থিত ছিলেন। বোর্ড এর সচিব ও রেক্টর পুলিশ স্টাফ কলেজ জনাব শেখ মুহম্মদ মারুফ হাসান বিপিএম, পিপিএম সভা পরিচালনা করেন।

সভার প্রারম্ভে বোর্ড সচিব বলেন, “মুজিববর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতার” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কলেজ প্রতিষ্ঠার পর থেকে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে একটি সুখী সমৃদ্ধশালী নিরাপদ সমাজ গড়ায় প্রত্যয়ে বাংলাদেশ পুলিশ এর সিনিয়র কর্মকর্তাদের দক্ষতা ও যোগ্যতা ও পোশাদারিত্ব বৃদ্ধির লক্ষ্যে কলেজের শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কাজ অব্যাহত আছে। সভায় বিগত ১৬তম বোর্ড সভার সিদ্ধান্ত বাস্তাবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়। পুলিশ স্টাফ কলেজ বিধি ও প্রবিধি অনুমোদন, পুলিশ স্টাফ কলেজ আইন ২০২০ সংশোধন ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা হয়।

সিনিয়র সচিব, জননিরাপত্তা বিভাগ শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও গবেষণার ক্ষেত্রে প্রাইভেট-পাবলিক অংশিদারিত্বের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

ইন্সপেক্টর জেনারেল বাংলাদেশ পুলিশ বলেন জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে পুলিশ স্টাফ কলেজ কর্তৃক বাস্তবায়িত গবেষণাটি চূড়ান্ত হলে বাংলাদেশে জনবান্ধব পুলিশ তথা জনতার পুলিশ গঠন করার ক্ষেত্রে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে এঁর পুলিশ দর্শন বাস্তবায়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন দশ বৎসর পূর্বের পুলিশ আর বর্তমান সময়ের পুলিশের মধ্যে পরিবর্তন দৃশ্যমান হচ্ছে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় পুলিশ সামর্থের পরিচয় দিচ্ছে।