অ্যাপারেল প্রমোটার্স লিমিটেড আন্তর্জাতিকভাবে অনুমোদিত আরএমজি এক্সেসরিজ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান। এবার ‘স্মার্ট স্মাইল’ ব্র্যান্ড নামের সাথে বাংলাদেশের বাজার ও রপ্তানির জন্য আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত মেডিকেল ও কেএন-৯৫ মাস্ক উৎপাদন শুরু করেছে। এ জন্য ইতোমধ্যে চীনভিত্তিক গোল্ডেন ফাউন্ড কোম্পানির সাথে যৌথ উদ্যোগে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির কারখানা স্থাপন করা হয়েছে। ওই কারখানায় নিশ্চিত করা হয় মানুষের হাতের স্পর্শহীন এবং সম্পূর্ণ ধুলবালিমুক্ত পরিবেশে মাস্ক উৎপাদন, যা পণ্যের গুণগত মান নিশ্চিত করে।
সংশ্লিষ্টরা জানান, মাস্কের ফিল্টারেশন এফিসিয়েন্সি (পরিস্রাবণ দক্ষতা) পরীক্ষা করতে ‘স্মার্ট স্মাইল’ বাংলাদেশেই তৈরি করেছে নিজস্ব পরীক্ষাগার। এই পরীক্ষাগারে মাস্কের ব্যাকটেরিয়াল ফিল্টারেশন এফিসিয়েন্সি, পার্টিক্যাল ফিল্টারেশন এফিসিয়েন্সি, ব্রিথেবলিটি এবং ব্লাড রেসিসটেন্ট ফিল্টারেশন নির্ভুলভাবে পরীক্ষা করা যায়। ‘মেল্ট-ব্লোন’ ফ্যাব্রিক ব্যবহার করে যা চীন থেকে কাঁচামাল হিসেবে আমদানির মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে উৎপাদন করে থ্রি-এম মাস্কগুলিতে ব্যবহৃত হয়েছে। ‘মেল্ট-ব্লোন’ ফ্যাব্রিককে বলা হয় মাস্কের প্রাণ, কেননা এই উপাদান ব্যাকটেরিয়া এবং একাধিক ধরনের ধূলিকণাকে শ্বাসযন্ত্রে প্রবেশে বাধা দেয়।
‘স্মার্ট স্মাইল’ এর এই সার্জিক্যাল এবং কেএন-৯৫ মাস্ক তৈরি হচ্ছে দেশের মাটিতেই। এই বিষয়টি সর্বসাধারণকে জানাতে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে গত বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। যেখানে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী যথাযথ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা হয়। এ সময় আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন এবং বর্তমান কোভিড-১৯ মহামারি পরিস্থিতি, দৈনন্দিন জীবনে মাস্ক ব্যবহারের গুরুত্ব তুলে ধরা হয়। এছাড়াও সরকার কতটা গুরুত্ব সহকারে বাংলাদেশে কোভিড-১৯ এর বিস্তাররোধে কাজ করছে সে সম্পর্কেও তাদের মতামত জানান।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন, ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্টারপ্রেনারশিপ একাডেমির প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব সৈয়দ মজিবুল হক। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাবৃন্দ যথাক্রমে ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুজিবুর রহমান সিআইপি, প্রতিষ্ঠানটির মাস্ক ইউনিটের পরিচালক যথাক্রমে পিটার ডং ও নিকোলশাইন। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা প্রতিষ্ঠানটির মিশন, ভিশন এবং পণ্যের গুণগত মান তুলে ধরেন।
উল্লেখ্য, প্রতিষ্ঠানটির ইতোমধ্যে এফডিএ রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছে। এছাড়া সিই সার্টিফিকেশন এবং আইএসও সার্টিফিকেশন প্রাপ্তির প্রক্রিয়ায় রয়েছে। ‘স্মার্টস্মাইল’ সার্জিক্যাল মাস্ক তিন লেয়ারবিশিষ্ট, যার বিএফই (ব্যাকটেরিয়া ফিল্টারেশন এফিসিয়েন্সি) ৯৫% এবং পিইই (প্র্যাকটিক্যাল ফিল্টারশন এফিসিয়েন্সি) ৯৫%। অপরদিকে ‘স্মার্টস্মাইল’ কেএন-৯৫ মাস্কটি পাঁচ লেয়ারবিশিষ্ট যার বিএফই (ব্যাকটেরিয়া ফিল্টারেশন এফিসিয়েন্সি) ও পিইই (প্র্যাকটিক্যাল ফিল্টারশন এফিসিয়েন্সি) ৯৫%।
অ্যাপারেল প্রমোটার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুজিবুর রহমান সিআইপি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, করোনা মহামারীর শুরু থেকে পৃথিবীজুড়ে মাস্কের সংকট দেখা যায়। এই সংকট বাংলাদেশেও লক্ষ্য করা গেছে। কারণ রাতারাতি এর চাহিদা ব্যাপক আকার ধারণ করে। দেশের এবং আন্তর্জাতিক চাহিদা পূরণে এখন আমরাই মানসম্পন্ন মাস্ক তৈরি করছি।
অ্যাপারেল প্রমোটার্স লিমিটেডের পরিচালক (মাস্ক ইউনিট) পিটার ডং বলেন, আমাদের কারখানা সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তিতে পরিচালিত। যেখানে শতভাগ সুরক্ষা নিশ্চিত করা হয়। আমরা ইতোমধ্যে এফডিএ রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছি। ফলে ইতোমধ্যে আমরা যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে আমাদের উৎপাদিত মাস্ক রপ্তানি শুরু করতে পেরেছি।