এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী ও নগর আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিনের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। তিনি ছাড়াও চশমা হিলের আরও দুজনের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিআইটিআইডিতে তার নমুনা পরীক্ষা শেষে এ ফলাফল জানানো হয়। নির্ভরযোগ্য সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

বিআইটিআইডির দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, হাসিনা মহিউদ্দিনের পরিবারের সবার নমুনা সংগ্রহ করা হলেও শুধু তারই রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তবে চশমা হিলের বাসিন্দা একজন পুরুষ ও একজন নারীরও রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তিনি নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

যদিও একই দিন হাসিনা মহিউদ্দিনের সন্তানimageশিক্ষা উপমন্ত্রী ও চট্টগ্রাম ৯ আসনের সংসদ সদস্য মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের করোনার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। এর আগে রোববার প্রয়াত মেয়র বিএবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী ছোট ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ায় নগরীর চশমা হিলের তাদের ভবনটিও লকডাউন করে দেওয়া হয়। তিনি শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেলের ছোট ভাই। এরপর নওফেলসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের নমুনা পরীক্ষার জন্য সংগ্রহ করা হয়।

মহিউদ্দিন চৌধুরীর ছোট ছেলে বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে কিছুদিন ঢাকায় ছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পর গত বৃহস্পতিবার তার জ্বর আসে। নমুনা পরীক্ষার জন্য বিআইটিআইডিতে পাঠালে সেখান থেকে ১০ মে রাতে পজিটিভ রেজাল্ট এসেছে। তাকে আপাতত বাসায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এখন জ্বর নেই। উপসর্গ বেশি দেখা না গেলে বাসায় রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।