প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীনের উহান শহর ও অন্যান্য স্থানে ‘করোনাভাইরাস’ সংক্রমণে প্রাণহানিতে গভীর শোক প্রকাশ করে আক্রান্তদের দুর্দশা লাঘবে যেকোনো ধরনের সহায়তার জন্য বাংলাদেশ প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব এ বি এম সরওয়ার-ই-আলম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এ শোক প্রকাশ করেছেন।

চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমার দৃঢ় বিশ্বাস আপনার সুযোগ্য নেতৃত্বে চীন সরকার সর্বোচ্চ দক্ষতা ও নিয়ন্ত্রণের সঙ্গে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে। সংকট নিরসনে একটি টাস্কফোর্স গঠন ও জরুরি হাসপাতাল স্থাপন সময়োপযোগী ও প্রশংসনীয়। বাংলাদেশ সরকার আক্রান্তদের দুর্দশা লাঘবে যে কোনো ধরনের সহায়তা দিতে প্রস্তুত রয়েছে। এ ভাইরাস সংক্রমণে মারা যাওয়া ও আক্রান্তদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের এ সঙ্কটজনক মুহূর্তে চীনে বসবাসরত বাংলাদেশি নাগরিককে সুরক্ষা দেয়ায় চীনের নেতাদের ধন্যবাদ জানান। শেখ হাসিনা প্রশংসা করে বলেন, প্রেসিডেন্ট শির গতিশীল নেতৃত্বের কারণে চীন উন্নয়নের বিশ্ব মডেল হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে, বিশেষ করে এশীয় অঞ্চলে আপনার অবদান সত্যই প্রশংসার দাবিদার।

প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ১৭ মার্চ অনুষ্ঠেয় ‘মুজিব বর্ষ’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের প্রতি তার আমন্ত্রণ পুনর্ব্যক্ত করেন। চীনে করোনাভাইরাস সংক্রমণে দেশব্যাপী এ পর্যন্ত অন্তত ১৩৫৫ জন মারা গেছেন এবং প্রায় ৬০ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। হুবেইয়ের স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে প্রদেশে নতুন করে আরো ১৪৮৪০ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।