পুলিশের হেফাজতে চট্টগ্রামের ‘লেডি গ্যাং লিডার’সিমি

0
19

ডেস্ক নিউজ: চট্টগ্রামের পতেঙ্গায় এক কিশোরীকে মারধর এবং তাকে হত্যার হুমকি দেয়ার ঘটনায় পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন সেই ‘লেডি গ্যাং লিডার’ তাহমিনা সিমি।

শনিবার(১৩ মার্চ) বিষয়টি গণমা্যেমে নিশ্চিত করেন পতেঙ্গা থানার ওসি (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান।

গতকাল (১২ মার্চ) পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে এক কিশোরীকে অপর দুই কিশোর ও কিশোরী মিলে মারধর এবং তাকে হত্যার হুমকি দেয়ার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, সৈকতের কাছেই দাঁড়িয়ে ও বসে কথা বলছেন দুই কিশোরী ও এক কিশোর। দাঁড়িয়ে থাকা কিশোরী চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় তার ছেলে বন্ধুকে উদ্দেশ করে বলছেন, ‘ওই দিন আমাকে মারার জন্য ছুড়ি নিয়েছে বেটা।’

উত্তরে বসে থাকা কিশোরী নিজের গাল এগিয়ে দিয়ে বলেন, ‘তুমি আমারে মারো, মারো মারো…। মারতে বললাম মারো না।’

এসময় পেছনে এসে এক কিশোর (ছেলে বন্ধু) বসে থাকা কিশোরীর মাথায় আঘাত করে বলতে শোনা যায়, ‘মারলে এভাবেও তো মারা যায়’।

আঘাত পেয়ে নির্যাতিতা কিশোরী বলেন, ‘ভাইয়া প্লিজ..’। কিন্তু ওই কিশোর তার কথা না শুনেই ‘ওকে মারবা কেন’ বলে কিশোরীর মাথায় ও মুখে আঘাত করতে থাকে এবং বলতে থাকে ‘আমাকে চেন তুমি’।

এক পর্যায়ে দাঁড়িয়ে থাকা কিশোরীকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি চাইলে তুমি এখান থেকে জিন্দা যাইতে পারবা না। তুমি ওই দিন কোন সাহসে ছুড়ি নিছ। আমি চাইলে তুমি যেতে পারবা না।’

এ সময় নির্যাতিতা কিশোরী তার হাত ধরে অনুনয়-বিনয় করলেও মন গলেনি তার। উত্তরে হামলাকারী কিশোরীকে বলতে শোনা যায়, ‘তুমি জানো, আমি বললে এখানে তোমার লাশ ফেলে দেবে।’

হামলার শিকার কিশোরীর পরিচয় জানা যায়নি। তবে মারধরের সময় সিমির সঙ্গে তার ছেলে সঙ্গী মেহেরুল ছিলেন।

এর আগেও গত বছরের ২৪ আগস্ট বাসায় ঢুকে এক তরুণীকে মারধর করেছিলেন সিমি ও তার গ্রুপ। পরে ওই তরুণীর মামলায় একই বছরের ২৭ আগস্ট দুই সহযোগীসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন সিমি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here