চট্টগ্রাম নগরীতে ইংরেজি সাইনবোর্ড সরানোর নির্দেশ

0
10

ডেস্ক নিউজ: চট্টগ্রাম নগরীতে বাংলা লেখার সাইনবোর্ড ব্যবহার নিশ্চিতে মাঠে নেমেছে জেলা প্রশাসন। বিপণী বিতান এবং দোকানসহ সব প্রতিষ্ঠানের ইংরেজি সাইনবোর্ড সরাতে ৩ দিনের সময় বেধে দেওয়া হয়েছে। পরিবর্তে সাইনবোর্ডগুলো বাংলায় লিখার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রচলন নিশ্চিতে আজ (২০ ফেব্রুয়ারি) নগরের জিইসি, কাজীর দেউড়ি, জামালখান ও চকবাজার এলাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিপনী বিতান এবং দোকানে অভিযান পরিচালনা করে জেলা প্রশাসন ।

এসময় বেধে দেওয়া সময়ের পর বাংলা ছাড়া অন্য কোনো ভাষার সাইনবোর্ড পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানানো হয়।

সতর্কতামূলক এই অভিযানে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. উমর ফারুক, মিজানুর রহমান এবং রেজওয়ানা আফরিন নেতৃত্ব দেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক জিইসি মোড়ের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিপনী বিতান এবং দোকানে অভিযান চালিয়ে প্রায় ২০টি দোকান ও প্রতিষ্ঠানের মালিককে বাংলা ভাষায় সাইনবোর্ড ব্যবহারের নির্দেশনা দেন।

এ সময় ওয়েল ফুড, সুগার বান, সেন্ট্রাল শপিং কমপ্লেক্স, ডিয়ারলি আইসস্ক্রিম, ফ্লেভারস, জামান রেস্টুরেন্ট মেজবানি অ্যান্ড কাবাব, নভোএয়ার লিমিটেড, রয়েল পার্ক রেসিডেন্টশিয়াল হোটেল, মিনিসো, বি-টু, ঢাকা বুট বার্ন, হোসাইন লাইটিং, ভিআইপি অপটিকসকে বাংলায় সাইনবোর্ড ব্যবহারের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান চকবাজার, কাজীর দেউড়ি ও এম এ আজিজ স্টেডিয়াম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। তিনি এসব এলাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিপনী বিতান এবং দোকান মালিককে ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাংলায় সাইনবোর্ড ব্যবহার নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেন।

নগরের জামাল খান এলাকায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন। তিনি জামাল খান এলাকার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, বিপনী বিতান এবং দোকান মালিককে আগামী ৩ দিনের মধ্যে বাংলায় সাইনবোর্ড ব্যবহার নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেন।