এবার দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জালে আটকে যাচ্ছেন চট্টগ্রাম-৩ (সন্দ্বীপ) এর সরকার দলীয় এমপি মাহফুজুর রহমান মিতা।

ইতোমধ্যে এমপি মিতার বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, চাঁদাবাজি, ভূমিদস্যুতা, ১০ থেকে ২০ পার্সেন্ট হারে ঘুষ নিয়ে ঠিকাদার নিয়োগ, অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের বিস্তর অভিযোগ জমা পড়েছে দুদকে।

আর এসব অভিযোগ তদন্ত ও অনুসন্ধানের অনুমোদন দিয়ে আগামি ৩ নভেম্বরের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছে দুদক প্রধান কার্যালয়।

গত ৮ অক্টোবর অনুমোদন সংক্রান্ত এক চিঠিতে স্বাক্ষর করেন দুদক প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শফিউল্লাহ। তিনি নিজেই এমপি মাহফুজুর রহমান মিতার দুর্নীতির অনুসন্ধান করবেন বলে উল্লেখ করা হয় সেই চিঠিতে।

সুত্র-একুশে পত্রিকা