গায়ক, সংগীতপরিচালক ও চিত্রশিল্পী শায়ান চৌধুরী অর্ণবে বেশ প্রভাবিত অভিনয়শিল্পী মিথিলা। গান, ছবি আঁকা, গিটার বাজানো এসব শেখা অর্ণবের কাছেই। সম্পর্কে দুজন মামাতো-ফুপাতো ভাইবোন। প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে আজ শনিবার এসব কথা বলেন মিথিলা। বাংলাভিশনের ‘আমার আমি’ অনুষ্ঠানে আজ রাতে দেখা যাবে দুই মাধ্যমের এই দুই শিল্পীকে। একজন উপস্থাপক অন্যজন অতিথি।

‘আমার আমি’ অনুষ্ঠানটি অনেক বছর ধরে টেলিভিশনে প্রচার হয়ে আসছে। অনেকেই এই অনুষ্ঠানের উপস্থাপনার দায়িত্ব নিয়েছেন। এবার সেই অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করবেন মিথিলা। এর আগে দম্পতিদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছিলেন মিথিলা। অল্প কিছুদিন করেই তা ছেড়ে দেন।

ছোটবেলায় মিথিলারা থাকতেন সিদ্ধেশ্বরী আর অর্ণবদের বাসা ছিল মগবাজারে। তবে পড়াশোনার কারণে অর্ণবকে থাকতে হতো শান্তি নিকেতনে। যখন ঢাকায় আসতেন অর্ণব তাঁর বোন মিলিতা চৌধুরী ও মিথিলাসহ আড্ডায় মেতে উঠতেন। গাইতেন, ছবি আঁকা নিয়েও কথা বলতেন। মিথিলা বলেন, ‘আমার আসলে গান শেখা, ছবি আঁকা ও গিটার বাজানো শেখার যাবতীয় উৎসাহ অর্ণব ভাইয়ের কাছ থেকে। তিনি আমাকে খুব প্রভাবিত করতেন। আমরা তো প্রায় একই সঙ্গে বেড়ে উঠেছি। শান্তি নিকেতন থেকে যখন ছুটিতে ঢাকায় আসতেন, তখন আমরা একসঙ্গে গান গাইতাম, ছবি আঁকতাম। অর্ণব ভাইয়াও এসবে খুব উৎসাহ দিতেন। অর্ণব ভাই, মিলিতা আপু দুজনই আমাকে খুব ভালোবাসত। ওদের সঙ্গেই থাকতাম। অর্ণব ভাইয়ের প্রথম রেকর্ডিং করা গানে আমি, মিম ও মিলিতা আপু কণ্ঠ দিয়েছি।’

‘আমার আমি’ অনুষ্ঠান উপস্থাপনা প্রসঙ্গে মিথিলা বলেন, ‘এই অনুষ্ঠান কিন্তু বহুদিন ধরে টেলিভিশনে প্রচার হচ্ছে। এটার একটা লিগেসি রয়েছে। বেশ কিছুদিন ধরে অনুষ্ঠানের প্রযোজক সাজ্জাদ হুসাইন চাইছিলেন, আমি যেন অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করি। কিন্তু আমাকে এত কাজে ব্যস্ত থাকতে হয়, সময় বের করাটাই মুশকিল। অবশেষে মাসে দুই দিন এই অনুষ্ঠানের জন্য সময় বের করেছি। সবার খুব প্রিয় ও অনেক পরিচিত একটি অনুষ্ঠান। আমি যদি কিছুদিন উপস্থাপনা করি, আরও কিছু মানুষ হয়তো পছন্দ করবে।’

‘আমার আমি’ অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে মিথিলার অতিথি হয়ে এসেছেন অর্ণব। এই অনুষ্ঠানে দুজনেই নিজেদের রেকর্ড করা প্রথম গান গেয়েছেন। কথা বলেছেন, অর্ণবের গানের পরিকল্পনা নিয়েও।