মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে চট্টগ্রাম ও আশপাশের এলাকায় ঝড়ো বাতাসসহ ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

www.traveltrolleybd.com

www.traveltrolleybd.com

ধসের শঙ্কায় চট্টগ্রামে পাহাড়ের পাদদেশে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীদের সরে যেতে মাইকিং করছে জেলা প্রশাসন। পাশাপাশি এসব বাসিন্দাদের আশ্রয় নেওয়ার জন্য খোলা হয়েছে ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরীর ১৭টি ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়সহ এশিয়ান উইমেন ইউনিভার্সিটি সংলগ্ন বায়েজিদ-ফৌজদারহাট সিডিএ লিংক রোড এলাকায় মাইকিং কার্যক্রম অব্যাহত আছে। করোনাভাইরাস দুর্যোগের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীরা পাহাড় থেকে সরে নিরাপদে অবস্থান গ্রহণ করতে পারে এজন্য চান্দগাঁও, বাকলিয়া, আগ্রাবাদ এবং কাট্টলী এলাকায় মোট ১৯ টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ উজ্জ্বল কান্তি পাল বলেন, সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। পাশাপাশি ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। অতি বর্ষণের ফলে ভূমি ধস হতে পারে।