হোসে পেকারম্যান কি আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবে ফিরছেন? আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমের অনুমান সে রকমই। পেকারম্যান দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছেন কলম্বিয়া দলের। পরবর্তী গন্তব্য কী, তা নিয়েই চলছে গুঞ্জন।
নড়বড়ে, আত্মবিশ্বাসহীন নয়; নিকট অতীতে আর্জেন্টিনার সবচেয়ে দাপুটে দলটার কোচ ছিলেন হোসে পেকারম্যান। ২০০৬ বিশ্বকাপে আর একটু হলেই যে দলটা জার্মানি ধাঁধা মিলিয়ে দিতে চলেছিল। এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত সমতা ফিরিয়ে পেনাল্টি শুট আউটে ম্যাচ হারা, সেই ম্যাচে লিওনেল মেসি নামের উঠতি বিস্ময়কে না-নামানো…এসব নিয়ে সেই বিশ্বকাপে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই পেকারম্যানকেই আবার দায়িত্বে ফিরে চায় আর্জেন্টিনা। পেকারম্যান ফিরবেন, এমন একটা সম্ভাবনাও উঁকি দিতে শুরু করেছে। সাড়ে ছয় বছর দায়িত্বে থাকার পর কলম্বিয়া কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন পেকারম্যান।

দক্ষিণ আমেরিকান কোচদের মধ্যে আলাদা সুখ্যাতি আছে পেকারম্যানের। কলম্বিয়াকেই যেমন ১৬ বছর বিরতির পর গত বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে তুলেছিলেন। শুধু তা-ই নয়, সেই বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালেও উঠে গিয়েছিল কলম্বিয়া। ইংল্যান্ডের কাছে টাইব্রেকারে হেরে না গেলে এবারও দল উঠত শেষ আটে। ধারাবাহিক সাফল্যের কারণেই দেশটির ফুটবল ফেডারেশন খুব করে চাইছিল পেকারম্যান থেকে যান। কিন্তু পেকারম্যান নিজে চুক্তি নবায়ন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যমের অনুমান, আবারও আকাশি-সাদার দায়িত্ব নিতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পেকারম্যান। কলম্বিয়ার সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ পারিবারিক সম্পর্ক, সেখানে খুব ভালোমতো থিতু হওয়া, দেশটির নাগরিকত্ব নেওয়া, ফুটবল ফেডারেশনের চাওয়া…এসব অগ্রাহ্য করে সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পেকারম্যান নিশ্চয়ই বড় কোনো চ্যালেঞ্জেই পেতে যাচ্ছেন?

ভবিষ্যতে কী করবে, সে ব্যাপারে ৬৯ পেকারম্যান নিজে কিছু বলেনি। আপাতত এটুকুই বলেছেন, ‘আমার কলম্বিয়ান মেয়ে এই খবর শুনলে খুব হতাশ হবে জানি, কিন্তু আমি হাসিমুখেই বিদায় নিচ্ছি এটা জেনে, মানুষের সমর্থন আমার সঙ্গে ছিল। এই কথাটা আমি শুরুতেই বলেছিলাম। আমাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে, বড় কিছু অর্জন করতে জাতীয় দলকে সমর্থন দিয়ে যেতে হবে। আমরা দীর্ঘ বন্ধুর পথ ধরে হেঁটে গেছি, এই যাত্রা অব্যাহত রাখতে হবে।’

গত বিশ্বকাপের পর হোর্হে সাম্পাওলিকে ছাঁটাই করে আর্জেন্টিনা। এরপর স্থায়ী কোনো কোচ নিয়োগ দেয়নি আর্জেন্টিনা ফুটবল সংস্থা (এএফএ)। ভারপ্রাপ্ত কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন লিওনেল স্কালোনি। গত ১২ বছরে ৮ বার কোচ বদলানো এএফএ এবার তাড়াহুড়ো করতে চায় না। দীর্ঘ মেয়াদের জন্যই নতুন কোচ খুঁজছে আর্জেন্টিনা। এএফএ-প্রধান ক্লদিও তাপিয়ার অন্যতম পছন্দের নাম হোসে পেকারম্যান।